Breaking News
ছোলা খাওয়ার দুটি বিষয় মাথায় না রাখলেই ঘটবে মা’রা’ত্ম’ক বিপদ

ছোলা খাওয়ার দুটি বিষয় মাথায় না রাখলেই ঘটবে মা’রা’ত্ম’ক বিপদ

ছোলা খাচ্ছেন – রমজান মাস আসলেই ছোলার চাহিদা বেড়ে যায়। রমজান মাসে ছোলা সিদ্ধ করে খাওয়া তা নিয়ে সমস্যা নয়। সমস্যা হল স্বাস্থ্যের জন্য ছোলা অনেকেই সকালে খালি পেটে কাঁচা খেয়ে থাকেন। তবে এই কাঁচা ছোলার সঙ্গে আর কী খাওয়া ঠিক কিংবা ঠিক না সে বিষয়টি অনেকেই মাথায় রাখেন না। অথচ এই বিষয়টি খেয়াল রাখা খুব জরুরি। কারণ সঠিক তথ্য না জানার জন্য অনেক সময় হিতে বিপরীত ফলাফল ভোগ করতে হতে পারে।

 

দেখা যাবে ভালো করতে গিয়ে আপনার শরীরের জন্য তা বিপদ ডেকে আনতে পারে। তাই সঠিক তথ্য জানাটা আপনার শরীরের জন্য খুবই জরুরি। অনেকেই হিমোগ্লোবিন বৃদ্ধি ও খাদ্য পরিপাকের কথা মাথায় রেখে রাতেই ছোলা ভিজিয়ে দেন ও পরের দিন সকালে সেগুলো খান। কাঁচা ছোলা খাওয়া শরীরের জন্য খুবই ভালো, তা যেমন আপনার শরীরের রক্তের পরিমাণ বৃদ্ধি করে, তেমনি আপনাকে ফিটও রাখে। তবে প্রায় সময়ই দেখা যায় ছোলা খাওয়ার কিছুক্ষণ পরই অন্যান্য খাবার খান অনেকেই। যা বিপদ বয়ে আনতে পারে।

 

বিশেষ করে এই সময় আপনি যদি দুটি জিনিস খান, তাহলে আপনার শরীরে অসুখের প্রবণতা বৃদ্ধি পেতে পারে। আসলে কাঁচা ছোলা খাওয়ার পর এই দুটি জিনিস শরীরে গেলে তা আপনার শরীরের জন্য বিষক্রিয়ার সৃষ্টি করতে পারে। তাতে করে শরীরে বিভিন্ন রকম রোগ দানা বাঁধতে পারে। তাই সকালে ছোলা খাওয়ার পর দুটি জিনিস ভুলেও খাবেন না।

 

চলুন জেনে নেয়া যাক সেই দুটি জিনিস সস্পর্কে-

 

>সকালে খালি পেটে কাঁচা ছোলা খাওয়ার পর ভুলেও কোনো রকম আচার খাবেন না। আসলে আচারের মধ্যে অনেক সময় ভিনেগার দেয়া হয়, কাঁচা ছোলা খাওয়ার পর যদি আপনার পেটে ভিনেগার যায় তাহলে তা বিষক্রিয়া করতে পারে। এতে করে কাঁচা ছোলা ও আচার একই সঙ্গে আপনার পেটে গেলে তা উপকারের বদলে অপকার করবে এবং আপনার হার্ট অ্যাটাক পর্যন্ত হতে পারে। সেই সঙ্গে সহ্য করতে হবে গলা-বুক জ্বালা ও অম্বলের সমস্যা।

 

> সকালে খালি পেটে কাঁচা ছোলা খাওয়ার পর কখনোই কলা খাবেন না। কারণ কাঁচা ছোলাতে যে অক্সাইড পাওয়া যায়, সেই অক্সাইড আপনি পাবেন করলাতে। বরং কাঁচা ছোলাতে যে পরিমাণ অক্সাইড পাওয়া যায় কলাতে তার চেয়ে অনেক বেশি মাত্রায় অক্সাইড থাকে। তাতে করে শরীরের মধ্যে তা প্রবেশ করার পর তা মিলেমিশে বিষক্রিয়ার সৃষ্টি করে। তবে এই বিষক্রিয়া খুবই ধীরে ধীরে কাজ করে ও পরে তা গভীর অসুখের সৃষ্টি করতে পারে।

Check Also

সুস্থ থাকতে নিয়মিত খান কচি বাঁশ।

সুস্থ থাকতে নিয়মিত খান কচি বাঁশ।

প্রচলিত জনপ্রিয় ধারার একটি শব্দ বাঁশ। একে অপরকে ক্ষতি করার ক্ষেত্রে অথবা উপহাস করার ছলে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!